সরকারি চাকরিজীবীদের ৫ শতাংশ বিশেষ প্রণোদনা ঘোষণা

বাজেট আলোচনায় সরকারি চাকরিজীবীদের ৫ শতাংশ বিশেষ প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, মূল্যস্ফীতি বিবেচনায় সরকারি চাকরিজীবিদের পাঁচ শতাংশ হারে আপদকালীন প্রণোদনা দেয়া হবে। সমস্যা দেখে ঘাবড়ালে চলবে না, সেটা মোকাবেলা করতে হবে। যারা চোখে ভাল কিছু দেখে না, তারাই বাজেটকে উচ্চাভিলাষী বলছে। প্রধানমন্ত্রী সংসদে জানান, এ বছরের শেষে বা আগামী বছরের শুরুতে হবে জাতীয় নির্বাচন। নিঃস্বার্থভাবে কাজ করার মতো এমন আর কোন নেতৃত্ব দেশে নেই বলে উল্লেখ করেন তিনি।  প্রধানমন্ত্রী জানান, রবিবার (২৫ জুন) প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সংসদে সমাপনী আলোচনায় অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি বলেন-নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু তৈরি করে বিশ্বকে সক্ষমতার প্রমাণ দেখিয়েছে বাংলাদেশ। গ্রামের উন্নয়ন যারা চোখে  দেখে না তারা বাজেট নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। কথা বলেন, জাতীয় নির্বাচন নিয়েও। প্রধানমন্ত্রী সংসদে জানান, চলতি অর্থবছরে দেশে সর্বজনীন পেনশন চালু হবে। মূল্যস্ফীতির চাপ সহনীয় করতে সরকারি চাকরিজীবিদের জন্য দেয়া হবে বিশেষ প্রণোদনা। এরপর সংসদে অর্থবিল ২০২৩ উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। এর ওপর জনমত যাচাই এবং সংশোধনী প্রস্তাব দেন বিরোধীদল জাতীয় পার্টি এবং স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা। এরমধ্যে বেশক'টি সংশোধনী গ্রহণ করেন অর্থমন্ত্রী। পরে, অর্থমন্ত্রী বিলটি উত্থাপন করলে সর্বসম্মতিক্রমে তা কণ্ঠভোটে পাস হয় নতুন অর্থবিল। অর্থবিল পাসের পর সংসদ সোমবার পর্যন্ত মূলতবি করেন স্পিকার। রীতি অনুযায়ী জুনের শেষদিন বাজেট পাসের কথা থাকলেও ঈদের ছুটির কারণে এবার সোমবারই পাস হবে নতুন বাজেট।
বাজেট আলোচনায় সরকারি চাকরিজীবীদের ৫ শতাংশ বিশেষ প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, মূল্যস্ফীতি বিবেচনায় সরকারি চাকরিজীবিদের পাঁচ শতাংশ হারে আপদকালীন প্রণোদনা দেয়া হবে। সমস্যা দেখে ঘাবড়ালে চলবে না, সেটা মোকাবেলা করতে হবে। যারা চোখে ভাল কিছু দেখে না, তারাই বাজেটকে উচ্চাভিলাষী বলছে।

প্রধানমন্ত্রী সংসদে জানান, এ বছরের শেষে বা আগামী বছরের শুরুতে হবে জাতীয় নির্বাচন। নিঃস্বার্থভাবে কাজ করার মতো এমন আর কোন নেতৃত্ব দেশে নেই বলে উল্লেখ করেন তিনি।  প্রধানমন্ত্রী জানান,

রবিবার (২৫ জুন) প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সংসদে সমাপনী আলোচনায় অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় তিনি বলেন-নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু তৈরি করে বিশ্বকে সক্ষমতার প্রমাণ দেখিয়েছে বাংলাদেশ। গ্রামের উন্নয়ন যারা চোখে  দেখে না তারা বাজেট নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। কথা বলেন, জাতীয় নির্বাচন নিয়েও।

প্রধানমন্ত্রী সংসদে জানান, চলতি অর্থবছরে দেশে সর্বজনীন পেনশন চালু হবে। মূল্যস্ফীতির চাপ সহনীয় করতে সরকারি চাকরিজীবিদের জন্য দেয়া হবে বিশেষ প্রণোদনা।

এরপর সংসদে অর্থবিল ২০২৩ উত্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী। এর ওপর জনমত যাচাই এবং সংশোধনী প্রস্তাব দেন বিরোধীদল জাতীয় পার্টি এবং স্বতন্ত্র সংসদ সদস্যরা। এরমধ্যে বেশক’টি সংশোধনী গ্রহণ করেন অর্থমন্ত্রী।

পরে, অর্থমন্ত্রী বিলটি উত্থাপন করলে সর্বসম্মতিক্রমে তা কণ্ঠভোটে পাস হয় নতুন অর্থবিল।

অর্থবিল পাসের পর সংসদ সোমবার পর্যন্ত মূলতবি করেন স্পিকার। রীতি অনুযায়ী জুনের শেষদিন বাজেট পাসের কথা থাকলেও ঈদের ছুটির কারণে এবার সোমবারই পাস হবে নতুন বাজেট।