রাতারাতি পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি

হটাৎ করে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। একদিন আগের ১২০ টাকার পেঁয়াজ রাজধানীর খুচরা বাজারে এখন কেজি প্রতি ২৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ভারত আগামী বছরের মার্চ পর্যন্ত পেঁয়াজ রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর বাংলাদেশে এর দাম রাতারাতি বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

আজ শনিবার (৯ ডিসেম্বর) রাজধানীর রামপুরা কাঁচাবাজার, উত্তর বাড্ডা, মোহাম্মদপুর, মিরপুর, হাতিরপুল ও কারওয়ান বাজারসহ কয়েকটি বাজারে ঘুরে এ তথ্য পাওয়া গেছে। এদিকে বাজারে স্থিতিশলতা আনতে রাজধানীতে অভিযান পরিচালনা করছে ভোক্তা অধিকার।

রাজধানীর খুচরা বিক্রেতারা বলছেন, প্রতি ক্ষণেক্ষণে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। এজন্য পাইকাররা দেশি পেঁয়াজ ছাড়ছেই না। কারওয়ান বাজার, শ্যামবাজারেও ভোরে যে দাম ছিল, সকাল ৯টায় তা মণপ্রতি ৮০০-১০০০ টাকা বেড়ে গেছে। বিকেল নাগাদ বাজারে পেঁয়াজের দাম আরও বাড়তে পারে। ব্যবসায়ীরা জানান, ভোরে শ্যামবাজার থেকে বহু কষ্টে এলসির (ভারতীয়) দুই মণ পেঁয়াজ এনেছি। আমি পাইকারিতে কিনেছি ৭ হাজার ৪০০ টাকা মণ দরে। আনতে খরচ পড়ছে ৪০০-৪৫০ টাকা। এখন ২০০ টাকা কেজি না বেচলে তো লস।

আমাদের চট্টগ্রাম প্রতিনিধি জানান, চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে, মাথায় হাত বেশিরভাগ ক্রেতার। কারণ এক রাতের ব্যবধানে, কেজিতে ১০০ টাকা দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের খবরে, বাজারে অস্বাভাবিকভাবে দাম বাড়ছে পণ্যটির। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ভারতীয় পেঁয়াজের কেজি ২০০ টাকা আর দেশি পেঁয়াজের কেজিপ্রতি দাম ২৪০ টাকায় ঠেকেছে। অস্বাভাবিক এই মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। তবে দেশের সব পাইকারি বাজারেই পেঁয়াজের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

দিনাজপুরে একদিনেই অস্থির পেঁয়াজের বাজার

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরে এক দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে গেছে। আজ শনিবার (৯ ডিসেম্বর) দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১৮০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজি দরে আর ভারতীয় পেঁয়াজ প্রকারভেদে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা। হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ হওয়ায়  মধ্যবিত্ত ও খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ বিপাকে পড়েছে। ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে পেঁয়াজের দাম।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পেঁয়াজের দাম কমার সম্ভাবনা খুব কম। নতুন পেঁয়াজ বাজারে উঠেছে। নতুন পেঁয়াজ বাজারে বিক্রি হচ্ছে পাতাসহ ১৫০ টাকা থেকে ১৬০ টাকা কেজি দরে।

এক রাতের ব্যবধানে মোংলায় ১০০ টাকার পেঁয়াজ কেজিতে বেড়েছে ৮০ টাকা

মোংলা প্রতিনিধি : মোংলায় এক রাতের ব্যবধানে মোংলায় পেঁয়াজের দাম কেজিতে বেড়েছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত। গতকাল শুক্রবার যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ১০৫ থেকে ১১০টাকায়, সেই পেঁয়াজ রাতের ব্যবধানে শনিবার সকালে দাম বাড়িয়ে বিক্রি করা হচ্ছে ১৮০ টাকা পর্যন্ত। শনিবার সকালে বাজারে এসে পেঁয়াজের দাম শুনে চোখ যেন মাথায় উঠে গেছে ক্রেতাদের। বাড়তি দাম শুনে কেউ পেঁয়াজ না নিয়ে ফিরে যাচ্ছেন, আবার কেউ সাধ্যমত স্বল্প পরিমাণ পেঁয়াজ কিনে বাড়ি ফিরছেন। যদিও পেঁয়াজ নিত্যপ্রয়োজনীয় তাই দাম বাড়লেও বাধ্য হয়েই আবার ক্রেতাদের কিনতে হচ্ছে। এনিয়ে ক্রেতাদের মধ্যে রয়েছে ক্ষোভ, দাম দর নিয়ে বাকবিতন্ডাও ঘটছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মধ্যে। ক্রেতারা বলছেন, এখন নতুন পেঁয়াজ উঠছে ও উঠবে, তাহলে দাম বাড়বে কেন?

ক্রেতা দিমজুর আলী আকবর বলেন, ১১০ টাকার পেঁয়াজ এখন ১৫০-১৬০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। আমরা গরিব মানুষ। কীভাবে এতো বেশি দামে পেঁয়াজ কিনে খাব। অন্যান্য মালের দামও বেশি, আমাদের পরিবার চালাতে খুব কষ্ট হচ্ছে।