মায়ের কবরের পাশে সমাহিত হলেন হুমায়রা হিমু

অভিনেত্রী হুমায়রা হিমুকে তার মায়ের কবরের পাশে সমাহিত করা হয়েছে। শুক্রবার (৩ নভেম্বর) রাত সোয়া ৮টার দিকে লক্ষ্মীপুর শহরের লামচরী জামে মসজিদের পাশের একটি কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়েছে। এর আগে রাত ৮ টায় মসজিদ প্রাঙ্গণে তার নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্মীপুরের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অধ্যক্ষ মাঈন উদ্দিন পাঠান, মইন উদ্দিন চৌধুরী কামরুল। এছাড়াও স্থানীয় লোকজন ও মসজিদের মুসল্লিরা অংশ নেন।

এদিকে রাত ৭ টায় অ্যাম্বুলেন্সযোগে তার মৃতদেহ নানার বাড়ি লক্ষ্মীপুর শহরের লামচরী পুরাতন গো-হাটা সংলগ্ন এলাকায় নিয়ে আসা হয়। আত্মীয়-স্বজন মৃতদেহ এক নজর দেখার পর বাদ এশা জানাজার নামাজ সম্পন্ন হয়।

হুমায়ারা হিমুর মামা ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সাবেক পরিচালক মাঈন উদ্দিন চৌধুরী  বলেন, হিমুর বাবা-মা কেউই বেঁচে নেই। হিমু বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। তার বাবা প্রকৌশলী সানা উল্লাহ দুই মাস আগে মারা যান। তার মা শামীম আরা চৌধুরী ২০২০ সালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তবে তার মায়ের সাথে তার বাবার সম্পর্ক ছিল না। হিমু যখন ছোট ছিল তখন তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়।

প্রসঙ্গত, হুমাইরা হিমু ১৯৮৫ সালের ২৩ নভেম্বর লক্ষ্মীপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ইস্পাহানি কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ইডেন মহিলা কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। মঞ্চ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি প্রথম নাট্য জগতে প্রবেশ করেন। ফ্রেঞ্চ নামক নাট্য দলের হয়ে তিনি অভিনয় করেন। ২০১১ সালে ‘আমার বন্ধু রাশেদ’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে হুমায়রা হিমুর অভিষেক হয়। চলচ্চিত্রের গল্পটি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ওপর ভিত্তি করে তৈরি এবং চলচ্চিত্রে তার অসাধারণ অভিনয় সমালোচকদের ইতিবাচক সাড়া পেয়েছিল।