IPL

টানা দুদিন বেশ অর্থের ঝনঝনানি শোনা গেল। আইপিএলের মঞ্চে ওঠানো হলো ক্রিকেটারদের। সশরীরে না হলেও তাঁদের নাম বলে হাতুড়ির আঘাত তো অন্তত বেদিতে পড়েছিল। আটটি দল গত দুই দিন নিজ নিজ স্কোয়াড সাজাতে লড়াইয়ে নেমেছিল। আরেকটি মৌসুমের জন্য আইপিএলের অংশ হয়ে গেলেন ১৮৭ জন ক্রিকেটার।
এবার প্রতিটি দলকে ৮০ কোটি রুপির বাজেট ধরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ২০১৭ সালের তুলনায় যা ১৪ কোটি বেশি। বাড়তি বাজেট পেয়ে দলগুলোও নেমেছিল উৎসবে। স্কোয়াড পূরণ করার জন্য ২০ লাখ রুপিতে কেনা ক্রিকেটারের সংখ্যাই বেশি। কিন্তু যাঁরা মুহূর্তেই খেলা বদলে দিতে পারেন, যাঁদের বোলিং বা ব্যাটিং হয়ে উঠতে পারে শিরোপার অন্য নাম, তাঁদের জন্য লড়েছে সবাই। তবে ১৮৭ জনের সবাই হাতুড়ির নিচে যাননি। আটটি দল ১৮ জন খেলোয়াড়কে আগেই ধরে রেখেছিল। নিলামের মাধ্যমে দলে টেনেছে ১৬৯ জন ক্রিকেটারকে। বাকি ৪০৯ ক্রিকেটারকে হতাশ হয়ে ফিরতে হয়েছে। নিলামে কেনা খেলোয়াড়দের জন্য সর্বমোট খরচ? ‘মাত্র’ ৪৩১ কোটি ৭০ লাখ রুপি।
নিলামে দলগুলোর কাছে সবচেয়ে লোভনীয় মনে হয়েছে ফাস্ট বোলার কিংবা অলরাউন্ডারকে। চাইলে ১৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারেন, ইচ্ছা হলেই মারতে পারেন ছক্কা—বেন স্টোকসকে পেতে টানাটানি তো হবেই! তাই দাম হাঁকানোর খেলাতে সবচেয়ে বেশি দাম উঠেছে এই ইংলিশ অলরাউন্ডারের। আইপিএলে প্রত্যাবর্তন-পর্ব ১২ কোটি ৫০ লাখ রুপির স্টোকসকে দিয়েই উদ্‌যাপন করল রাজস্থান রয়্যালস। নিলামে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ খরচও এই দলের। বাঁহাতি পেসার জয়দের উনাদকাতকে পেতে ১১ কোটি ৫০ লাখ খরচ করেছে রয়্যালসরা। নিলামের শীর্ষ ১০ দামি ক্রিকেটারের সর্বশেষজনও স্টোকসদের সতীর্থ।
নিলামের খেলায় গতবার সাড়ে ১৪ কোটি রুপি দর উঠেছিল স্টোকসের। এবার ২ কোটি কম পারিশ্রমিক পাচ্ছেন স্টোকস। বিরাট কোহলিকে নিলামে উঠতে হয়নি, ফলে গতবারের মতোই ১৭ কোটি রুপি পাচ্ছেন ভারত ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু অধিনায়ক। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আইপিএলে ফিরেছে চেন্নাই সুপার কিংস। ফিরেই ‘ঘরের ছেলে’ মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নিয়ে নিয়েছে চেন্নাই। ১৫ কোটি রুপি দিয়ে অধিনায়কের প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত করেছে দলটি। আর গতবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে চ্যাম্পিয়ন করার পুরস্কার পেয়েছেন রোহিত শর্মা। তাঁকেও ১৫ কোটি রুপিতে ধরে রেখেছে মুম্বাই।
বাড়তি বাজেট পেয়ে দলগুলো খরচে কোনো কার্পণ্য করেনি। ২৫ জন নিয়ে স্কোয়াড গড়ার সুযোগ থাকলেও কলকাতা নাইট রাইডার্স ১৯ জন নিয়ে দল সাজাতেই বাজেট শেষ করে ফেলেছে! এ কারণেই এবার ১০ কোটির ওপরে পাচ্ছেন—এমন ক্রিকেটারের সংখ্যা দুই অঙ্ক ছুঁয়েছে।