২০০ পর্বে ‘নির্বিকার মানুষ’

এটিএন বাংলা ডেস্ক: এটিএন বাংলায় আজ (১৮ নভেম্বর) রাত ১০.৫৫ মিনিটে প্রচার হবে ধারাবাহিক নাটক ‘নির্বিকার মানুষ’। আজ প্রচার হবে ধারাবাহিকটির ২০০তম পর্ব। টুকু মজনিউলের রচনায় ধারাবাহিকটি পরিচালনা করেছেন মাসুদ মহিউদ্দীন। অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, নাফিজা জাহান, আদনান ফারুক হিল্লোল, নওশীন, নাজনীন হাসান চুমকি, হুমায়রা হিমু, সামস্ সুমন, তনিমা আহমেদ, আরফান আহমেদ, লুৎফর রহমান জর্জ, মাহমুদুল ইসলাম মিঠু, শর্মিলী আহমেদ, কে এস ফিরোজ, ড. ইনামুল হক, আহসানুল হক মিনু প্রমুখ।

হাসান এস এস সি ও ইন্টারমিডিয়েটে স্ট্যান্ড করা ছাত্র। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ল’ ডিপার্টমেন্ট থেকে অনার্স শেষ করার পর কোন এক অজ্ঞাত কারণে মাস্টার্সে ভর্তি হয় না। ঠিক করে আর পড়াশোনা করবে না। ঘুম আর রাস্তায় রাস্তায় ঘোরাফেরা করে সময় পার করতে থাকে। এক বিস্ময়কর জীবন বেছে নিয়েছে সে। তার সঙ্গে যাদের পরিচয় হয় তারা প্রায় সবাই হাসনের দ্বারা কেমন যেন প্রভাবিত হয়ে যায়। হাসানকে ভালবাসে আলপনা নামের এক মেয়ে। যে হাসানের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তো। কিন্তু হাসান তাকে ভালবাসে কিনা তা বুঝতে পারে না। হাসানের অন্য এক ক্লাসমেট সুমিকে পাগলের মত পছন্দ করে সোহেল। কিন্তু সুমি ভাবে হাসান হয়তো তাকে একসময় ভালবাসতো। তার কারণেই হাসান আজ লেখাপড়া বন্ধ করে বাউন্ডেলে হয়ে গেছে। ওদিকে আলপনার মা চায় তার মৃত বোনের সুন্দরী মেয়ে মায়াকে বিয়ে করে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে হাসান আবার পড়াশোনা শুরু করুক। হাসান মায়াকে পছন্দ করে কিনা বোঝা যায় না। কিন্তু মায়া হাসানকে পছন্দ করে ফেলে। হাসানের সিনিয়র বন্ধু মিঠু। একমাত্র বোন বিন্তিকে নিয়ে মিঠুর সংসার। হাসান মাঝে মধ্যে মিঠু ভাইয়ের বাসায় যায়। বিন্তি হাসানকে পছন্দ করে কিনা হাসান বুঝতে পারে না। কিন্তু মিঠু হাসানকে খুব পছন্দ করে।

আলপনাকে বিয়ে দেওয়ার জন্যে উঠে পড়ে চেষ্টা করে তার বাবা। আলপনা একদিন হাসানকে কথাটা বলে কিন্তু হাসান নির্বিকার। সুমি প্রতি নিয়ত হাসানকে খুজে বেড়াচ্ছে তার ভালবাসার কথা জানাবে বলে। মায়া অপেক্ষা করে কবে হাসান বর সেজে মায়ার সামনে গিয়ে দাঁড়াবে। কিন্তু হাসান হাসানের মত। সে এসবের কিছুই ভাবে না।

এরই মধ্যে মায়াকে পুরাতন ঢাকার এক প্রভাশালী ছেলে নাজিম রাস্তায় দেখে পছন্দ করে ফেলে। নাজিমের বড় ভাই আজিম পুরাতন ঢাকার গডফাদার। আজিম চাই যে ভাবেই হোক মায়ার সাথে নাজিমের বিয়ে দেবে। কিন্তু মায়া রাজি হয় না। আজিম-নাজিমের লোকজনের চোখে পড়ে হাসান। একসময় হাসানকে তুলে নিয়ে যায় তারা। কি করবে হাসান. এভাবেই এগিয়ে যেতে থাকে গল্প…।

Translate »