‘বিএনপি নেতা কথা বললে রাষ্ট্রদ্রোহ, জয় বললে দেশপ্রেমিক’

রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ক্ষমতায় টিকে থাকার চক্রান্ত করতেই ইসরাইলি রাজনীতিক মেন্দি এন সাফাদির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় বৈঠক করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রোববার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। রিজভী আরও বলেন, প্রশাসন এখন সরকারের নিয়ন্ত্রণে, তবে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হলে জয়ের বিচার হবে।

এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, “সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের কথা বলেছেন মেন্দি সাফাদি নিজেই। একজন ব্যক্তির সঙ্গে বিএনপির কোনো নেতা কথা বললে হয় রাষ্ট্রদ্রোহ, আর প্রধানমন্ত্রীর ছেলে কথা বললে হয় দেশপ্রেমিক। এই হচ্ছে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি, এই হচ্ছে ভোটারবিহীন সরকারের বিচার।”

বিএনপি ফিলিস্তিনের পক্ষে উল্লেখ করেন তিনি আরও বলেন যে, ইসরাইলের সবাই খারাপ নয়। বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সব মামলা মিথ্যাচারের ভিত্তিতে এবং আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলাও তারই ধারাবাহিকতা বলে মন্তব্য করেন তিনি।

ইসরায়েলের ক্ষমতাসীন লিকুদ পার্টির সদস্য মেন্দি সাফাদির সঙ্গে বৈঠকের একাধিক ছবি গণমাধ্যমে আসার পর বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আসলাম চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করেছে পুলিশ।

এরইমধ্যে গত শুক্রবার সাফাদির একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ করে বিবিসি বাংলা অনলাইন। সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ছেলে জয়ের সঙ্গে ওয়াশিংটন ডিসিতে সাক্ষাৎ হয়েছে বলে সাফাদি দাবি করেছেন।