পরীক্ষায় অংশ নিয়েও অনুপস্থিত ৪৫ শিক্ষার্থী

জাতীয়

লালমনির হাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার উত্তর বাংলা কলেজের ৪৫ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিলেও ফলাফলে অনুপস্থিত দেখিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

বৃহস্পতিবার (৪ আগষ্ট) সন্ধ্যায় ওয়েব সাইটে অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

ফলাফল দেখে হতাশ উত্তরবাংলা কলেজের বাংলা বিভাগের অর্নাস প্রথম র্বষের ৪৫ জন পরীক্ষার্থী। তারা সকলেই পরীক্ষায় অংশ নিলেও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েব সাইটের ফলাফলে তাদেরকে অনুপস্থিত দেখানো হয়েছে।

জানাগেছে, উত্তর বাংলা কলেজ থেকে অনার্স প্রথম বর্ষের পরীক্ষায় বাংলা বিভাগ থেকে মোট ৪৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। লালমনিরহাট সরকারী কলেজ কেন্দ্রে চলতি বছরের ৬ ফেব্রুয়ারী বাংলা ভাষার ইতিহাস ও ব্যবহারীক বাংলা বিষয়ের পরীক্ষায় অংশ নেন এসব শিক্ষার্থী।
বৃহস্পতিবার(৪ আগষ্ট) সন্ধ্যায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটে ফলাফল প্রকাশ করা হলে ওই কলেজের বাংলা বিভাগের সকল পরীক্ষার্থীকে বাংলা ভাষার ইতিহাস ও ব্যবহারীক বাংলা বিষয়ে অনুপস্থিত দেখানো হয়েছে। ফলাফলের এমন চিত্র দেখে হতবাক পরীক্ষার্থী,শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

উত্তর বাংলা কলেজের বাংলা বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের পরীক্ষার্থী আতিক, বুলবুল, আসাদ, বিক্রম, মিথিলা, সান্তনা ও আলামিনসহ অনেকেই ফলাফল দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন । তারা বলেন, পরীক্ষায় অংশ নিয়েও তাদেরকে অনুপস্থিত দেখানো কতটা দায়িত্বহীনতার পরিচয় বহন করে। দ্রুত সংশোধনী ফলাফল প্রকাশের দাবি জানান এসব শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

উত্তর বাংলা কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আবু শাহাদাত রুবেল জানান, কোন কারণে হয়ত পরীক্ষার্থীদের হাজিরার তালিকা পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌছানো হয় নি। তাই এমনটি হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে পরীক্ষার্থীদের হাজিরা পত্রটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌছালে তারা সংশোধনী ফলাফল প্রকাশ করবেন। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ঠদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

উত্তর বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ মনোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শনিবার কেন্দ্র থেকে হাজিরা পত্র সংগ্রহ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠানো হবে সংশোধনী ফলাফলের জন্য। তবে শিক্ষার্থী ও অভিভাবদের হতাশ না হয়ে ধৈর্যসহকারে অপেক্ষা করতে অনুরোধ করেন তিনি।