‘দেশে বিনিয়োগ পরিস্থিতির অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে‘

রাষ্ট্রপতি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ২০১৪-১৫ অর্থ-বছরে আমদানি প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক তিন শতাংশ, এর মধ্যে মূলধনী যন্ত্রপাতির আমদানি প্রবৃদ্ধি ১৮ দশমিক ৬ শতাংশ। এতে প্রতীয়মান হয় যে, দেশে বিনিয়োগ পরিস্থিতির অনুকূল পরিবেশ বিরাজ করছে।

রাষ্ট্রপতি বুধবার দশম জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশনের ভাষণে এ কথা বলেন। সংসদে এসময় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদ উপস্থিত ছিলেন।

ভাষণে রাষ্ট্রপতি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুজ্জ্বল রাখতে এবং গণতন্ত্র ও আইনের শাসন সুদৃঢ় করতে ও শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে, বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

রাষ্ট্রপতি বলেন, জাতীয় সংসদ দেশের সকল উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কেন্দ্রবিন্দু। বর্তমান সরকার রাজনীতি থেকে হিংসা, হানাহানি ও সংঘাতের অবসানের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও আলোকিত দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি সরকারি দল ও বিরোধী দলসহ সকলকে জনগণের প্রত্যাশা পূরণের প্রতিষ্ঠান জাতীয় সংসদে যথাযথ ও কার্যকর ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারসহ অন্যান্য চাঞ্চল্যকর ও জনগুরুত্বপূর্ণ মামলাসমূহ নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের ভূমিকার প্রশংসা করেন।

বুধবার দশম জাতীয় সংসদের নবম অধিবেশন শুরু হয়। বছরের প্রথম অধিবেশন হওয়ায় রেওয়াজ অনুযায়ী অধিবেশনের শুরুতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সংসদে ভাষণ দেন। বিকাল সাড়ে ৪টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়।

রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর আগামী রোববার বিকেল  পর্যন্ত সংসদের অধিবেশন মুলতবি করা হয়। অধিবেশনের আগে কার্য উপদেষ্টা কমিটি সংসদের চলমান অধিবেশনের মেয়াদ আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত নির্ধারণ করেন।

Translate »