জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি,প্রধানমন্ত্রীসহ সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা

গ্যালারী নিউজ জাতীয়

এটিএন বাংলা ডেস্ক: শ্রদ্ধা, ভালবাসা আর বীর শহীদের স্মরণের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধে বাঙালির বিজয়ের ৪৪তম বার্ষিকী।

বুধবার ভোরে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে জাতীয়ভাবে শুরু হয় বিজয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা।

সকাল সাড়ে ৬টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

তিন বাহিনীর একটি চৌকস দল এ সময় সালাম জানায়। শহীদদের স্মরণে বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর। এর পর কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে একাত্তরের শহীদদের স্মরণ করেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

এরপর জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা স্মৃতিসৌধে ফুল দেন। পরে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হিসাবে দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে পরে আবারও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শেখ হাসিনা।

বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, সংসদ সদস্য, বিচারপতি, তিন বাহিনীর প্রধান, মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ভারতীয় সশস্ত্রবাহিনীর সদস্য ও কূটনীতিকরাও শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে স্মরণ করেন একাত্তরের শহীদদের।

এরপর সাধারণ মানুষের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয় স্মৃতিসৌধ।