খালেদা জিয়াকে দুই মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

রাজনীতি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ১১ আসামিকে দুই মাসের মধ্যে হাজিরের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বড় পুকুরিয়া মামলায় পুর্নাঙ্গ রায়ে এ আদেশ দেয়া হয়।

বুধবার এই রায় প্রকাশ করে আদালতের সংশ্লিষ্ট শাখা। মামলাটি বাতিল চেয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে, গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর আদালত, বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা চলবে বলে রায় দিয়েছিলেন।

একই সঙ্গে বলা হয়েছিল, রায়ের অনুলিপি পাওয়ার দুই মাসের মধ্যে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা জানান, যেহেতু পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়েছে, এখন তারা হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন।

এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম কে আনোয়ার, এম শামসুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, ব্যারিস্টার আমিনুল হক, একেএম মোশারফ হোসেন, সাবেক জ্বালানি সচিব নজরুল ইসলাম, হোসাফ গ্রুপের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

এর আগে ১/১১ এর জরুরি অবস্থার সময়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া ও তার মন্ত্রিসভার ১০ সদস্যসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি দুর্নীতি মামলা দায়ের করা হয়।

শাহবাগ থানায় মামলাটি করেন দুর্নীতি দমন ব্যুরোর (বর্তমান দুর্নীতি দমন কমিশন) তৎকালীন সহকারী পরিচালক মো. সামছুল আলম।

চীনা প্রতিষ্ঠান ‘কনসোর্টিয়াম অফ চায়না ন্যাশনাল মেশিনারিজ ইম্পোর্ট অ্যান্ড এক্সপোর্ট করপোরেশন’-এর সঙ্গে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির উৎপাদন, ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণ চুক্তি করার মধ্য দিয়ে রাষ্ট্রের প্রায় ১৫৮ কোটি ৭১ লাখ টাকার ক্ষতি করার অভিযোগ আনা হয় মামলাটিতে।