আসছে ‘রূপালী প্রান্তর’

গ্যালারী নিউজ বিনোদন হাইলাইট

এটিএন বাংলায় শীঘ্রই প্রচার শুরু হবে নতুন ধারাবাহিক ‘রূপালী প্রান্তর’। ড. মাহফুজুর রহমানের গল্প ভাবনা নিয়ে নির্মিত নাটকটি রচনা করেছেন রিজওয়ার খান আর পরিচালনা করেছেন কায়সার আহমেদ। এ উপলক্ষে ২৩ আগস্ট বিকালে ওয়াসা ভবনস্থা এটিএন বাংলার স্টুডিওতে নাটকটির প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এটিএন বাংলার উপদেষ্টা (অনুষ্ঠান) নওয়াজীশ আলী খান, উপদেষ্টা (বিক্রয় ও বিপনন) জিএম শামসুল হুদা, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তাশিক আহমেদ, নাটকের প্রযোজক ও মোহনা অডিও ভিজ্যুয়াল এর স্বত্ত্বাধীকারী জামাল উদ্দিন, পরিচালক কায়সার আহমেদ সহ এটিএন বাংলার উর্ধ্বতন ব্যক্তিবর্গ নাটকের শিল্পী সহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।

‘রূপালী প্রান্তর’ নাটকটির কাহিনী প্রবর্তিত হয়েছে মডেল হান্ট নামে সুন্দরী প্রতিযোগিতা নিয়ে। একটি স্বনামধন্য বিজ্ঞাপন নির্মাণ প্রতিষ্ঠান ‘ড্রিমল্যান্ড’ এর কর্ণধার শহীদুজ্জামান সেলিম। একটি মাল্টি-ন্যাশনাল প্রসাধন কোম্পানীর থেকে নতুন মুখের মডেল নিয়ে তিনটি বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মানের অর্ডার পায় সে। ‘মডেল হান্ট’ প্রকল্পের আওতায় প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এক ঝাক সুন্দরী রূপালী জগতের ঝলমলে তারকা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে ‘মডেলিং’ সম্পর্কে প্রচলিত কুসংস্কার, নেতিবাচক ধ্যান ধারণা ও পারিবারিক বাধা পেরিয়ে এবং কোন কোন ক্ষেত্রে উৎসাহে অনুপ্রাণীত হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করে।

নিলয়, ড্রিমল্যান্ডের মার্কেটিং চিফ ও মডেল হান্ট প্রকল্পের প্রধান। নিলয় চায় তার ভাললাগার নারী সখ মডেলিং করুক কিন্তুু সখের কোন ইচ্ছা নেই। নিলয় কৌশলে সখকে না জানিয়ে তার সিভি ও ছবি নিয়ে প্রতিযোগিতায় নাম লেখায়। সখ তার সিদ্ধান্তে অনড় থাকে। তার ছোট মামাত বোন ইভানার প্রতিদ্বন্দ্বী সে হতে চায় না। নিলয় জোর খাটিয়ে সখকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করতে বাধ্য করে। সখ চ্যাম্পিয়ন হয়। সে জন্য পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হতে হয় তাকে।

গ্রামের পাগলাটে ক্ষ্যাপা যুবক মোশাররফ করিম। গ্রামে অপরাধীদের ধরে এনে নিজে মক আদালত বসিয়ে রায় ঘোষণা করে, শাস্তির বিধান দেয়। কিন্তুু গ্রামে অপরাধ কমেনা। তখন সে মনে করে মানুষের মধ্যে ভালবাসা ছড়িযে দিতে পারলে সমাজে ঘৃণা ও শত্র“তা থাকবেনা এবং মানুষের মধ্যে অপরাধপ্রবনতা কমে যাবে। জনে জনে ভালবাসা ছড়িযে দেওয়ার কাজে নেমে পরে সে।

ঘটনাচক্রে মোশাররফ করিমের প্রেমিকা অহনা অপ্রত্যাশিতভাবে মডেলিং এ চান্স পায়। বাধ সাথে মোশাররফ। অসুস্থ বাবাকে বাচানোর জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন হয় অহনার। প্রেমিকের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে অহনা। ভালবাসা হত্যা করা বড় অপরাধ। অহনাকে শাস্তি দিতে গিয়ে নিজেই নিজের শত্র“ হয় মোশাররফ করিম।

নাটকটিতে যারা অভিনয় করেছেনঃ
শহীদুজ্জামান সেলিম, মোশাররফ করিম, শখ, নিলয়, অহনা, আলভি, আখম হাসান, নোভা, ছন্দা, অরিন, চিত্রলেখা গুহ, বাবুল আহমেদ, তমালিকা, ওবিদ রেহান, সোহান খান, ইভানা, রিক্তা, সুস্মিতা, আব্দুর রাতিন, সুবর্না মজুমদার, শিরিন বকুল প্রমুখ।