আমার ভাষা- আমার গর্ব

গ্যালারী নিউজ বিনোদন হাইলাইট

এটিএন বাংলা ডেস্ক:
বাঙালী জাতির মননে অনন্য মহিমায় সমুজ্জল চিরস্মরণীয় মাস ফেব্র“য়ারি। শোক, আত্মজাগরণ আর আত্মত্যাগের অহংকারে ভাস্বর এ মাসের ২১ তারিখ। ১৯৪৭ সালে উপমহাদেশের বিভক্তির পর পাকিস্তান রাষ্ট্রের রাষ্ট্রভাষার প্রশ্নে জন্ম নেয় মতোবিরোধ। পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকগোষ্ঠী রাষ্ট্রের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের মুখের ভাষা বাংলাকে অস্বীকার করে উর্দুকে চাপিয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করলে প্রতিবাদে সোচ্চার হন বাংলার ছাত্র ও বুদ্ধিজীবীরা। ১৯৫২ সালে এ আন্দোলন আরও তীব্র হয়ে উঠলে একুশে ফেব্র“য়ারি ছাত্র জনতার রক্তক্ষয়ী আন্দোলনের কাছে একপর্যায়ে নতিস্বীকার করে পাকিস্তানি সরকার। বাংলাকে রাষ্ট্রীয় ভাষায় স্বীকৃতি দিতে বাধ্য হয়।

২১শে ফেব্র“য়ারি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ইতিহাসের পাতায় পলাশ হয়ে ফোটা সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার, সফিউর প্রমুখ শহীদের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্র“য়ারি। ভয়কে তুচ্ছ করে মায়ের ভাষা বাংলার দাবিতে প্রাণ দিয়েছিলেন যেসব সাহসী সন্তান, তাঁরা একা ছিলেন না। তাঁদের পাশে ছিলেন আন্দোলন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়া আরও বীর সৈনিক যাঁরা পাশে থেকে সংগ্রাম করেছেন, উৎসাহ দিয়েছেন, শক্তি যুগিয়েছেন তাঁদের অনেকেই আজ বেঁচে আছেন রাষ্ট্রীয় ভাষার স্বীকৃতি হাতে নিয়ে। কেমন আছেন তাঁরা। কি কি ঘটেছিল রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে। আজ কি তাঁদের অনুভুতি। এসব কথা জানতে এম আর মাহবুব এর গবেষণা ও পরিকল্পনা এবং জিল্লুর রহমান এর পরিচালনায় এটিএন বাংলায় ফেব্র“য়ারি মাস জুড়ে প্রচার হবে ভাষা সৈনিকদের নিয়ে অনুষ্ঠান ‘আমার ভাষা আমার গর্ব’। অনুষ্ঠানটি প্রচার হচ্ছে প্রতিদিন সকাল ৯টা ৪৫মিনিটে এটিএন বাংলায়।